সুনামগঞ্জে বিভাগীয় ইনোভেশন সার্কেল-২০১৭ অনুষ্ঠিত

42

16508886_979599688838471_222408882011880616_nগত ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ সকাল ৯টায় সুনামগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমীর হাছন রাজা মিলনায়তনে সুনামগঞ্জ বিভাগীয় ইনোভেশন সার্কেল-২০১৭-এর শুভ উদ্ভোধন করেন মাননীয় মন্ত্রিপরিষদ সচিব জনাব মোহাম্মদ শফিউল আলম। উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন জনাব এন এম জিয়াউল আলম, সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনাব সোলতান আহমদ, প্রকল্প পরিচালক, জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল সহায়তা প্রকল্প ও অতিরিক্ত সচিব (সংস্কার), মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনাব মানিক মাহমুদ, ক্যাপাসিটি ডেভেলভমেন্ট স্পেশালিষ্ট, এটুআই প্রোগ্রাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, জনাব কামরুল আহসান, বিপিএম, উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক, সিলেট রেঞ্জ সিলেট, জনাব মো. আজম খান, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক), সিলেট, সিলেট বিভাগের সকল জেলা প্রশাসক মহোদয়গণ, সিভিল সার্জন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক, আইনজীবী, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কর্মরত বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা/কর্মচারী, এবং বিভিন্ন শ্রেণিপেশার গণমান্য ব্যক্তিবর্গ ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে জেলা প্রশাসক সুনামগঞ্জ বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি জেলার সার্বিক উন্নয়ন করতে। প্রত্যেক অফিসার একজন ইনোভেটর (Innovator). এখন প্রতিযোগিতা হচ্ছে কে কত ইনোভেটিভ হতে পারেন।’ তিনি ইনোভেশন সার্কেল সুনামগঞ্জের মাধ্যমে এরকম অনেক ইনোভেটর উঠে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে জনাব মানিক মাহমুদ, ক্যাপাসিটি ডেভেলভমেন্ট স্পেশালিষ্ট, এটুআই প্রোগ্রাম, ইনোভেশনের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে একটি উপস্থাপনা করেন। তিনি সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের মাধ্যমে নাগরিক সমস্যা সমাধানের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন।
এরপর চারটি জেলার ইনোভেশন অফিসারগণ বাৎসরিক উদ্ভাবনী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন অগ্রগতি ও পরবর্তী করণীয় উপস্থাপনা করেন।

জনাব এন এম জিয়াউল আলম স্যার সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ তাঁর বক্তব্যে বলেন, ইনোভেশনের সংখ্যা আরো বাড়াতে হবে। তিনি বলেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ইনোভেশনের উপর অত্যন্ত গুরুত্ব দিচ্ছে। তিনি বলেন প্রয়োজনে উপজেলা এমনকি ইউনিয়নেও ইনোভেশন সার্কেল আয়োজন করা হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় মন্ত্রিপরিষদ সচিব জনাব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, ইনোভেশন একটি সংস্কৃতির অংশ যা ইনোভেশন কালচার নামে পরিচিত। সারা বিশ্বে ইনোভেশন হচ্ছে। জাতীসংঘ এটি প্রমোট করছে। তিনি সার্ভিস প্রসেস সিমপ্লিফিকেশন (Service Process Simplification)-এর কথা উল্লেখ করে বলেন যে, এর উদ্দেশ্য হচ্ছে জনগণের প্রতি কমিটমেন্ট রক্ষা করা যে সকল সময় জনগণকে সেবা প্রদান করতে হবে। এর জন্য নতুন নতুন উদ্ভাবনীর মাধ্যমে সেবা দিতে হবে। যেখানে ঘাটতি হচ্ছে সেখানে কাজ করে অবস্থার উন্নতি ঘটাতে হবে। তিনি ইনোভেশন সার্কেল আয়োজনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।